মাদারীপুরে সুমন কেন এ পথ বেছে নিল।

154

মাদারীপুর প্রতিনিধি,সাইফুল ইসলামঃ মাদারীপুরে সুমন চৌকদার (৩৫) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে  শহরের ইটেরপুল বেড়িবাঁধ এলাকা থেকে তাঁর লাশটি উদ্ধার করা হয়। সে একই এলাকার হারুণ চৌকদারের ছেলে এবং পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্র জানায়, বিকেলে নিহত সুমনের বাড়িতে বসে তার বউয়ের সাথে পারিবারিক কলহের জের ধরে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় সুমন তার ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। দীর্ঘক্ষণ দরজা না খোলায় পরিবারের স্বজনদের সন্দেহ হয়।

পরে তার স্বজনরা সুমনের ঘরের দরজা ধাক্কা দেয়। সুমনের কোন সারা শব্দ না পেয়ে তারা দরজা ভেঙে দেখে সুমন তার সয়ন কক্ষে একটি আড়ার সাথে গামছা প্যাচানো অবস্থায় ঝুলে আছে। পরে সুমনের পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত সুমনের চাচাত বোন সোনিয়া আক্তার বলেন, আমার ভাই সুমন ভাবির সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় তার ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। আমরা তার কোন সারা শব্দ না পাওয়ায় দড়জা ভেগে ঘড়ে প্রবেশ করেলে দেখি ঘরের আড়ার সাথে গামছা প্যাচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছে। আমরা বুঝতে পারছি না কেন সুমন এমন করলো।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক কর্মকর্তা অখিল সরকার বলেন, গলায় ফাঁস লাগানো একটি লাশ জরুরী বিভাগে আনা হয়। হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত হয়।

আমরা তার লাশটি ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছি। মাদারীপুর সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কবির হোসেন বলেন, ‘আমার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।’