রায়পুর ক্লাবের উদ্যোগে বিতর্ক প্রতিযোগিতার কলেজ পর্যায়ে বিজয়ী হায়দরগঞ্জ মডেল কলেজ।

534

আখতার হোসাইন খান

লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলায়  আন্ত:স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা বিতর্ক প্রতিযোগিতা চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার(১২সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার রাখালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে এ প্রতিযোগিতা হয়। পরে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রায়পুর ক্লাবের আয়োজনে ৪র্থ এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার প্রদান করেন অতিথিবৃন্দ।

প্রতিযোগিতায় উপজেলার ৫টি সরকারি-বেসরকারি কলেজ ও ১২টি মাধমিক স্কুল এবং মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা এ অংশগ্রহন করে। ‘পারিবারিক শিক্ষার অভাবই কিশোর অপরাধ বৃদ্ধির মূল কারন’ এ বিষয়ে স্কুল পর্বের ফাইনালে হায়দরগঞ্জ মডেল স্কুলকে পরাজিত করে রাখালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। কলেজ পর্যায়ে “শিক্ষায় রাজনীতি প্রয়োজন না থাকলে ও রাজনীতিতে শিক্ষার প্রয়োজন ” এ বিষয়ে রায়পুর রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজকে পরাজিত করে সেরা হয়েছে হায়দরগঞ্জ মডেল কলেজ। বিতর্ক অনুষ্ঠানে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশ টেলিভিশন স্কুল বিতর্কের নির্দেশক সৈয়দ আশিক।

রায়পুর ক্লাবের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মারুফ বিন জাকারিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ . এস. এম মাকসুদ কামাল। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, রায়পুর সরকারি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মো. মাহবুবুল করিম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এ.কে.এম সাইফুল হক, ভেন্যু স্কুলের প্রধান শিক্ষক মৃনাল কান্তি, হায়দরগঞ্জ মডেল কলেজের সিনিয়র প্রভাষক ও সাংবাদিক আখতার হোসাইন খান ও কৃষি শিক্ষা বিষয়ের প্রভাষক রাশেদ হাসান, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শাহাদাত হোসেন শরীফ, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল করিম নিশান প্রমুখ।

বিতর্ক অনুষ্ঠানের ফাইনাল পর্বে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন, লক্ষ্মীপুর ডিবেট এসোসিয়েশনের সভাপতি মাজেদ আজাদ, রায়পুর রুস্তম আলী ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক তমালিকা চক্রবর্তী ও সাবেক বিতার্কিক আজিজুর রহমান খান বুলবুল। অনুষ্ঠানে আরো বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। শ্রোতাদর্শকবৃন্দ সকলেই রায়পুর ক্লাবের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান।