শরীরের ১৫ ভাগ পুড়ে গিয়েছে অর্থের অভাবে বিনা-চিকিৎসায় শরীরে পচন ধরেছে, বাঁচতে চায় হত দরিদ্র-আসমা

83

মোর্শেদ আলম মালেক, রাজবাড়ীঃ

হত দরিদ্র ঘরের গূহবধু আসমার শরীরের ১৫ ভাগ আগুনে পুড়ে গিয়েছে অর্থের অভাবে বিনা-চিকিৎসায় শরীরে  পচন ধরেছে, তার কোলে রয়েছে এক বছরের দুধের শিশু। এই অসহায় মা বাঁচতে চায় অর্থের অভাবে চিকিৎসার আশা যখন ছেড়েই দিয়েছিলেন ঠিক তখনি তার পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন রাজবাড়ী মানবিক সংগঠন। সংগঠনটি অগ্নিদগ্ধ আসমাকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করে দিয়েছেন। আসমার চিকিৎসার জন্য অনেক অর্থের প্রয়োজন। আমাদের সমাজের কিছু মানবিক ও বিত্তশালী মানুষের সহযোগিতায় পারে আসমার জীবন বাঁচাতে, তাই সকলকে এগিয়ে আসার আহবান।

আগুনে পুড়ে দগ্ধ হয়েছেন রাজবাড়ী শহরের এক হত দরিদ্র পরিবারের গূহবধু আসমা বেগম(২৬) স্বামী হত দরিদ্র রং মিস্ত্রী সলিম সেখ, সাং বেনীনগর উত্তর পাড়া থানা ও জেলা রাজবাড়ী গত ২৩/০৮/২০১৯ ইং তারিখে এক বছরের কন্যা শিশু বাচ্চার দুধ গরম করতে গিয়ে আসমা বেগমের শরীরের ১৫ ভাগ পুড়ে যায়। হত দরিদ্র রং মিস্ত্রী সলিম সেখ মানুষের কাছ থেকে ধার দেনা করে ঢাকা মেডিকেলের কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করান কিন্তু অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে এখন রাজবাড়ীতে নিয়ে এসেছেন। এখানকার ডাক্তাররা রোগীর চিকিৎসা করতে অপারগতা প্রকাশ করেন। অর্থের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে থাকেন কিন্তু কোন কূল কিনারা হয় না। আসমা দম্পতির সংসারে একটি এক বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে। আসমার অবস্থা খুবই সংকটপূর্ণ।

এ ব্যাপারে খোঁজ পাওয়া মাত্রই হাসপাতালে ছুটে যান মানবতার কবি মানবিক রাজবাড়ীর চেয়ারম্যান তরুণ ও সাহসি সাংবাদিক খন্দকার রবিউল ইসলাম, তাদের সেই করুণ ও অসহায় অবস্থা দেখে আসমাকে বাঁচাতে সাংবাদিক মোর্শেদ আলম মালেক ও সাংবাদিক খন্দকার রবিউল ইসলাম, আসমাকে ঢাকায় পাঠানোর জন্য রাজবাড়ী জেলা সমাজ সেবা অফিসার মহোদয়ের সহযোগিতায় এম্বুলেন্স এর ব্যবস্হা করে আসমাকে আবার ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা খুবই সংকটপূর্ণ ১৫ ভাগ পুড়া জায়গায় পচন ধরেছে। উক্ত আসমাকে বাঁচাতে হলে উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন যার সামর্থ্য এই হত দরিদ্র পরিবারটির নেই।

তাই, আমরা কি পারি না ? এই হত দরিদ্র পরিবারটির পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে। আপনাদের সামান্য অর্থনৈতিক সহযোগিতায় পারে আসমার জীবন বাঁচাতে। মানবিক ও বিত্তবান মানুষের প্রতি সবিনয়ে অনুরোধ রইলো।

আর্থিক সহযোগিতা পাঠানোর জন্য আপনাদের অনুরোধ জানিয়েছেন তার স্বামী মোঃ সলিম সেখ।

যোগাযোগের জন্য মোবাইল নম্বরঃ +8801616675651