রায়পুরে মাদ্রাসার ছাত্রীকে জোর করে ধর্ষণ,ধর্ষক আটক

71
নিজস্ব প্রতিবেদক 
৮নংদক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়ন চরকাচিয়া ৭নং ওয়ার্ড ছৈয়াল বাজার নুরানী মাদ্রাসার ছাত্রী ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী রুপশী আক্তার (১২) কে ধর্ষণের অভিযোগে একই এলাকার চরকাচিয়া ৭নং ওয়ার্ড এলাকার জাকির গোল্দার ছেলে মাসুদ গোল্দার(২২) কে আটক করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে রায়পুর থানায় নারীও শশু নির্যাতন দমন আইনে মঙ্গলবার রাতে ধর্ষিতার বাবা আমির হোসেন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, রায়পুর উপজেলার ৮নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের চরকাচিয়া গ্রামের জাকির গোল্দার এর পুত্র মাসুদ গোল্দার।কয়েক বছর আগে তারা বরিশাল থেকে এই এলাকাতে এসে বসবাস শুরু করে।এবং একটি বিয়ে করে,তার স্ত্রী সন্তান ও আছে।

মেয়ের বাবা বলেন আমার মেয়ে মাদ্রাসায় আশার পথে একা পেয়ে ডেকে নিয়ে যায় পাশে পরিতেক্ত বাড়িতে নিয়ে জোর করে ধর্ষণ করে।মেয়ের চিকিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আাশে ছেলে কে আটক করে।পরে চেয়ারম্যান কে ফোন করে বিষয়টি জানানো হয়,পরে গ্রামপুলিশ এসে নিয়ে যায় চেয়ারম্যান এর কাছে।চেয়ারম্যান আবু সালেহ মোঃমিন্টু ফরায়জী সমাধান করতে না পরে হাজিঁমারা ফাঁরির পুলিশের কাছে তাকে হস্তান্তর করে।

রায়পুর থানার অফিসার ইরনচার্জ (ওসি) মোঃ তোতা মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগ পেয়ে ধর্ষককে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে