করোনার ভাইরাস মাত্র ১০০ ঘন্টার মধ্যে ধ্বংস করে ফেলা সম্ভবঃ ড. মুসা বিন শমসের

93112
করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব ও বিস্তার সঙ্কটের মুহূর্তে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ভ্যাটার্ন অস্ত্র ব্যবসায়ী ড. মুসা বিন শমসের চ্যালেঞ্জ করে বলেছেন যে করোনা ভাইরাসকে মাত্র ১০০ ঘন্টার মধ্যে নির্মূল করা সম্ভব।

ইউ.এন.আই ঢাকা ব্যুরোর চিফ সাইদ আফরোজ জামান,
লন্ডন থেকে নিকোলাস মুর

করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব ও বিস্তার সঙ্কটের মুহূর্তে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ভ্যাটার্ন অস্ত্র ব্যবসায়ী ড. মুসা বিন শমসের চ্যালেঞ্জ করে বলেছেন যে করোনা ভাইরাসকে মাত্র ১০০ ঘন্টার মধ্যে নির্মূল করা সম্ভব। বিশ্বময় এই সংকটকালীন সময়ে কোন প্রচেষ্টাই এই বিশ্বকে বাঁচাতে পারবেনা যদি না উপযুক্ত ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হয়। কোভিড -১৯ এটি একটি মহাপ্রলয় যা মানব সভ্যতা ধ্বংস করতে অদৃশ্য আত্মা হিসাবে দ্রুত গতিতে প্রবাহিত হচ্ছে। যেহেতু বিশ্বের সব দেশে নেতৃত্বের সংকট চলছে সুতরাং, এই মুহুর্তে বিজ্ঞানীরা বিশেষ করে নাসার বিখ্যাত বিজ্ঞানীদের বিশেষভাবে এগিয়ে আসতে হবে। অন্যথায় ২০২০ সালের দিকে মানব সভ্যতা বিলুপ্ত হয়ে যাবে।

বিশ্বব্যাপী লকডাউন সিস্টেম মোটেই উদার ধারণা নয়। ড. মুসা বিন শমসের এবং তার ব্যবসায়িক অংশীদার ভয়ঙ্কর অস্ত্র ব্যবসায়ী আদনান এম. কাশোগি (খাশোকজি) বিশ্বের বহু দেশকে তাদের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আধুনিকীকরণের জন্য বিরাট অবদান রেখেছেন। বিশেষভাবে আদনান কাশোগি উত্তর কোরিয়া এবং ইরানকে বিশ্বের সবচেয়ে পারমাণবিক শক্তিধর দেশ হিসাবে পরিণত করেছেন।

ড. মূসা পুরোপুরি চ্যালেঞ্জ করে জানিয়েছিলেন যে, নাসা যদি সেলফার ডাস্টের সাথে পারমাণবিক ধূলিকণা মিশ্রনে ঘন ধোঁয়া তৈরী করে এবং আমেরিকান এয়ার ফোর্সের মাধ্যমে এই ধোঁয়া সারা বিশ্বে ১০ হাজার ফুট উপরে থেকে ছড়িয়ে দিতে পারে তাহলে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব বিলীন হয়ে যাবে। মানব স্বাস্থ্যের ঝুঁকি এড়াতে বিজ্ঞানীরা আরও কিছু উপাদান যুক্ত করতে পারেন এর সাথে। বিশ্ব নেতৃবৃন্দের ধারণা নেই যে করোনার ভাইরাস আক্রান্ত রোগীরা যারা সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে গেছে তারা আবারও আক্রান্ত হবে। সুতরাং, বিশ্ব নেতাদের জন্য বিজ্ঞানীদের পরামর্শের ভিত্তিতে ড. মূসা বিন শমসেরের এই অভূতপূর্ব তত্ত্বটি বাস্তবায়নের জন্য সর্বসম্মতভাবে এগিয়ে আসার সময় এসেছে। অন্য কোনও চিকিৎসা এবং কোনও ওষুধই করোনা ভাইরাস নামক এই বিপজ্জনক অনিবার্য মহামারী থেকে এই বিশ্বকে বাঁচাতে পারবে না। বিশ্ব নেতৃবৃন্দ যদি বাস্তবায়নে ব্যর্থ হন তবে কিয়ামতের দিনটি আসন্ন।

করোনা আপডেট পেতে লিংকে ক্লিক করুনঃ
# world-corona-update