নিহত শান্তিরক্ষী ও বেসামরিক কর্মীদের স্মরণ করল জাতিসংঘ

3
0

জাতিসংঘ সদর দফতরে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত শান্তিরক্ষী ও বেসামরিক কর্মীদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করল জাতিসংঘ।

বৃহস্পতিবার ২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জাতিসংঘের বিভিন্ন শান্তিরক্ষা মিশনে আত্মোৎসর্গকারী বাংলাদেশের পাঁচজনসহ বিশ্বের ৪২ দেশের ১৪০ শান্তিরক্ষী ও বেসমারিক কর্মীদের জন্য আয়েজিত এক স্মরণসভায় তাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয়।

নিহতদের মধ্যে ১২৩ সামরিক বাহিনী, তিন পুলিশ এবং ১৪ বেসামরিক সদস্য রয়েছেন।

তাদের মধ্যে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীরা হলেন- ২০১৬ সালের ১৩ অক্টোবর মালি মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিপাহি মো. আবুল বাশার, ২০১৭ সালের ৫ জানুয়ারি সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক মো. আব্দুর রহিম, ২০১৭ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর মালি মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় নিহত সিপাহি মো. মনোয়ার হোসেন, ল্যান্স কর্পোরাল মো. জাকিরুল আলম সরকার ও সার্জেন্ট মো. আলতাফ হোসেন।

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন এবং স্থায়ী মিশনের ডিফেন্স অ্যাডভাইজার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খান ফিরোজ আহমেদ এ স্মরণসভায় অংশ নেন। এ ছাড়া জাতিসংঘে কর্মরত বাংলাদেশ সেনা, নৌ, বিমান ও পুলিশ বাহিনীর কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

মোমবাতি প্রজ্বালন করে নিহতদের স্মরণ করেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি মিরোস্লাভ লাইচ্যাক ও নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি গুস্তাভো মেজা-কোয়াড্রা।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের আহ্বানে নিহতদের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ একটি অন্যতম বৃহৎ শান্তিরক্ষী সরবরাহকারী দেশ। ১৯৮৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত শান্তিরক্ষা মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় বাংলাদেশের ১৪৩ শান্তিরক্ষী মৃত্যুবরণ করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here