প্রতিবেশী সবার আগে

15
0

প্রতিবেশী সবার আগে’ লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠকের পর দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র টুইটারে এভাবেই এই বৈঠককে ব্যাখ্যা করেছেন।
বৈঠক শেষে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক সাংবাদিকদের জানান, কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে দুই প্রধানমন্ত্রী লন্ডনের ল্যাংকাস্টার হাউজে বিকালে বৈঠকে মিলিত হন এবং দ্বিপক্ষীয় স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

রোহিঙ্গা ও তিস্তা ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে কি-না সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, বৈঠকে সব বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

শহীদুল হক বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলোচনাকালে ভারত তার অবস্থান পরিবর্তন করেছে, যা আমাদের চিন্তার কাছাকাছি। তিনি বলেন, ভারত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে সহায়তা করছে।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ভারতের পশ্চিবঙ্গ রাজ্যের বিশ্ব ভারতী ইউনিভার্সিটিতে ‘বাংলাদেশ হাউস’ উদ্বোধনের বিষয়টিও দুই প্রধানমন্ত্রীর আলোচনায় স্থান পায়।

২৫তম কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনে যোগদানে দুই প্রধানমন্ত্রী বর্তমানে যুক্তরাজ্যের রাজধানীতে অবস্থান করছেন। বৃহস্পতিবার এ সম্মেলন শুরু হয়।

বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়কারী মো. আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে খোশ মেজাজে কথা বলেন শেখ হাসিনা ও মোদি। বাংলাদেশে ভারত যেসব উন্নয়ন কাজ শুরু করেছে, প্রধানত এর গতিপ্রকৃতি নিয়েই কথা বলেছেন তারা।