সাতক্ষীরায় নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে দুই সন্তানের জনক আটক

1
0

সাতক্ষীরায় নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে ধরা পড়েছেন দুই সন্তানের জনক। ধরা পড়া রহিম সানা ভ্যানচালক। আগে দুই বিয়ে করেছেন। ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে।

রোববার সাতক্ষীরা আদালত চত্বরের বাগান থেকে তাদেরকে আটক করে পুলিশ। বর্তমানে ভ্যানচালক ও স্কুলছাত্রী সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

জেলা বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট সাকিব হোসেন জানান, যশোরের মনিরামপুরের ওই স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করার জন্য নিয়ে আসেন সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কেয়ারগাতি গ্রামের শামসুর সানার ছেলে ভ্যানচালক রহিম সানা। এ কাজে তাকে সহায়তা করেছেন একই এলাকার আবির হোসেন।

তিনি আরও জানান, তারা নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করার কথা বলতেই পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশ এসে স্কুলছাত্রী ও রহিম সানা এবং তার বন্ধু আবিরকে থানায় নিয়ে যায়।

স্কুলছাত্রী জানায়, রহিম সানা তাকে মিথ্যা কথা বলে নিয়ে এসেছে। সে মনিরামপুরের বালিয়াডাঙ্গা হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী। রহিম সানা বিবাহিত এবং সন্তান থাকার বিষয়ে মিথ্যা বলেছে।

এ বিষয়ে রহিম সানা জানান, তিনি আগে দুই বিয়ে করেছেন। বাড়িতে স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে তার। কিন্তু এসব কথা স্কুলছাত্রীকে জানাননি তিনি।

সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের ডিউটি অফিসার এসআই শহিদুল ইসলম  জানান, বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। উভয় পক্ষের পরিবারের লোকজন আসার পর বিস্তারিত জেনে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here