প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে সাক্ষাত, থাই রাজকুমারীর

19
0

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন থাইল্যান্ডের রাজকুমারী মহাচক্রী সিরিনধরন। বৃহস্পতিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ সাক্ষাত অনুষ্ঠিত হয়।

পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এ বিষয়ে ব্রিফ করেন।

সাক্ষাতে পারস্পরিক কুশল বিনিময় ছাড়াও দুই দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। বাংলাদেশের ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্পের মতো থাইল্যান্ডেও প্রকল্প আছে বলে উল্লেখ করেন রাজকন্যা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দারিদ্র্য বিমোচনে তার সরকারের ক্ষুদ্র সঞ্চয়কে গুরুত্ব দেয়ার কথা উল্লেখ করেন। কৃষি, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ নিয়ে আলোচনা হয় দু’জনের। লবণাক্ততা, জলাবদ্ধতা ও খরা সহিষ্ণু ধানের জাত উদ্ভাবন, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনসহ কৃষিতে বাংলাদেশের সফলতার কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব জানান, বাংলাদেশের লিচু থাই রাজ কন্যার পছন্দ । তিনি দেশে ফিরে যাওয়ার সময় লিচু নিয়ে যাবেন বলেছেন।

থাইল্যান্ড বাংলাদেশকে ভেটিভার জাতের ঘাস দিয়েছে জানিয়ে প্রেস সচিব বলেন, ‘ভেটিভার জাতের ঘাস মাটির ক্ষয় রোধ করে। এ ঘাস মাটির ক্ষয় রোধ করে উপকুল রক্ষা, নদী ভাঙন রোধ করতে সাহায্য করে।‘

সাক্ষাতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা গওহর রিজভী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, থাইল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাঈদা মুনা তাসনিম, বাংলাদেশে নিযুক্ত থাই রাষ্ট্রদূত প্যানপিমন সুয়ান্নাপঙ্গে।