এসকে সিনহার ভাই মাত্র ২ বছরে কীভাবে আমেরিকায় বাড়ি কিনলেন: দুদক চেয়ারম্যান

1
0

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এসকে সিনহা) ভাই অনন্ত কুমার সিনহার বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ি কেনার একটি অভিযোগের অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।এজন্য দুদকের সহকারী পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধানকে প্রধান করে দুই সদস্যের অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এই তদন্তের মধ্যেই দুদকের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বললেন, অনন্ত কুমার সিনহা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক নন,  অথচ মাত্র ২ বছরে তিনি আমেরিকায় বাড়ি কিনলেন।

বিষয়টি খতিয়ে দেখতেই মূলত দুদক অনুসন্ধান করছে।আজ মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের একথা বলেন।ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় এবং কিছু পর্যবেক্ষণের কারণে ২০১৭ সালের অক্টোবরের শুরুতে ছুটিতে যান তখনকার প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। পরে বিদেশ থেকেই তিনি পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দেন বলে জানানো হয়।

এর এক বছরের মাথায় তিনি বিদেশে বসে ‘এ ব্রোকেন ড্রিম: রুল অব ল, হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি’ শিরোনামে একটি বই লিখেছেন; যা নিয়ে আলোচনা চলছে। ওই বইতে সিনহা দাবি করেন, তাকে পদত্যাগে বাধ্য করে নির্বাসনে পাঠানো হয়।এরপর ওয়াশিংটন ডিসিতে বইটির প্রকাশনা অনুষ্ঠানে সিনহা সাংবাদিকদের বলেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেছেন।

এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে ভাই অনন্ত কুমার সিনহার নামে ওই বাড়ি কেনার খবর গণমাধ্যমে এসেছে।এর আগেই বিচারপতি সিনহার ব্যাংক হিসাবে চার কোটি টাকা জমা দেওয়ার একটি অভিযোগের অনুসন্ধানের জন্য ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে এম শামীমসহ সাতজনের দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন।

অভিযোগের অনুসন্ধানে গত ৬ মে মো. শাহজাহান ও নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা নামে কথিত দুই ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক।ফারমার্স ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে পে-অর্ডারের মাধ্যমে রাষ্ট্রের এক ‘গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির’ ব্যাংক হিসাবে চার কোটি টাকা জমা দেওয়ার বিষয়টির অনুসন্ধানের জন্য ওই দুজনকে তলবের কারণ দেখিয়েছিল দুদক।দুদকের নোটিসে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ ওই ব্যক্তির নাম উল্লেখ না থাকলেও পদত্যাগী প্রধান বিচারপতি সিনহাই যে সেই ব্যক্তি, সংবাদপত্র ও টেলিভিশনে সে খবর আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here