ফেসবুকে ফাঁদে ফেলে গৃহবধূর লাখ টাকার গয়না লুট

13
সৌমিত্র মন্ডলের সঙ্গে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পরিচয় হয় এক গৃহবধূর। কথাবার্তার এক পর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে দুজনের মধ্যে। ওই নারীর ঘরে অবাধ যাতায়াতও শুরু হয় সৌমিত্রের। ঘনিষ্ট হয় সম্পর্ক। কথা দেন বিয়ে করবেন। কিন্তু শর্ত, সমস্ত গয়না, টাকা-পয়সা নিয়ে ছেড়ে আসতে হবে স্বামীর বাড়ি। প্রেমিকের কথা মতো তাও করেন ওই নারী। পড়েন এ বিশাল প্রতারণার ফাঁদে। প্রেমিকাকে তার গয়না, টাকা-পয়সাসহ আসতে বলে সর্বস্ব লুটে নেন সৌমিত্র মন্ডল। পালিয়ে যান অন্যত্র। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের আনন্দপুরে। যদিও পালিয়ে পার পাননি সৌমিত্র। তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে আরেক যুবকের পরিচয় পাওয়া যায়, তাকেও গ্রেপ্তার করেছে লেকটাউন থানা পুলিশ। সৌমিত্র মন্ডলের বাড়ি সন্দেশখালি। ওই নারী বসবাস করেন লেকটাউনে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ ২৪ ঘণ্টা তাদের এক প্রদিবেদনে জানিয়েছে, ঘটনার পর লেকটাউন থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী নারী। তার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে  নামে পুলিশ। গত সোমবার বাঁশদ্রোণী এলাকা থেকে সৌমিত্রকে গ্রেপ্তার করা হয়। লেকটাউন পুলিশ জানিয়েছে, সৌমিত্রকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে দুলাল নামে আরেক যুবকের কথা জানায় সে। অভিযান চালিয়ে তাকেও আটক করা হয়েছে। ভুক্তভোগীর গয়নাগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। আসামিদের বিধাননগর মহকুমা আদালতে তোলা হবে। এই ঘটনার নেপথ্যে আরও কেউ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।