দিল্লিতে কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৩

5
ভারতের রাজধানী দিল্লিতে একটি কারখানায় ভয়াবহ আগুনে অন্তত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ৫০জনকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, রোববার (৮ ডিসেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে রানি ঝাঁসি রোডের আনাজ মান্দি এলাকার ওই কারখানায় আগুন লাগে। এসময় কারখানার শ্রমিকরা ভেতরে ঘুমাচ্ছিলেন। ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, প্রায় ৩০টি ইউনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এখন পর্যন্ত ৫০ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তবে ভেতরে আরও অনেকেই আটকা রয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।এখনো উদ্ধার তৎপরতা চলছে। গুরুতর আহত প্রায় ৫০ জনকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে দিল্লির লোক নায়ক জয় প্রকাশ হাসপাতালে। দিল্লির দমকলের প্রধান অতুল গর্গ জানান, এখন পর্যন্ত ৫০ জন উদ্ধার করা গিয়েছে। অত্যাধিক ধোঁয়ায় শ্বাসকষ্টেই অনেকের মৃত্যু হয়েছে। লোক নায়ক হাসপাতালের সুপারিন্টেন্ডেন্ট কিশোর কুমার জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে চিকিত্সকের একটি দল পাঠানো হয়েছে। দিল্লি ফায়ার সার্ভিসের উপ-প্রধান সুনীল চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ৬০০ বর্গফুটের ওই বাড়িতে ভোরবেলা আগুন লাগে। কারখানার ভেতরটা অন্ধকার। এখানে স্কুলব্যাগ, বোতল তৈরি করে রাখা হত।’ ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, অগ্নিদগ্ধ ২০ জনকে স্থানীয় রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতাল ও হিন্দু রাও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সড়ক বন্ধ ছাড়াও ট্রাফিক পুলিশ সর্বসাধারণকে রানি ঝানসি উড়ালসড়ক (ফ্লাইওভার) ব্যবহার না করার নির্দেশ দিয়েছে। উড়ালসড়কটির অবস্থান নয়াদিল্লি রেলওয়ে স্টেশনের পাশেই