বিপদসীমার ভেতরে জলসিড়ি আবাসনের আর্মি অফিসারদের ত্রান কার্যক্রম

2

দেশের তথা সারাবিশ্বের ক্রান্তিলগ্নে , ন্যায় বিচারে সহ্যোগিতায়, সুষম বণ্টনে সবার আগে সব সময় আপামর জনগণ হোক আর রাজনৈতিক ব্যক্তি হোক সবাই প্রতিক হিসেবে আর্মি কেই স্মব্রন করে। এবার সারাবিশ্বের ক্রান্তিলগ্নে দেশের জন্যে প্রথম ঝাপিয়ে পড়া বাহিনী টি ও বাংলাদেশ আর্মি। তারাই প্রথম তাদের ১ দিনের বেতন প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন দেশের মানুষের কল্যাণে। বাংলাদেশ আর্মির বিভিন্ন উইং আলাদা আলাদা অর্থায়ন করে বিভিন্ন জায়গায় সেবা কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

নারায়নগন্জের রুপগঞ্জ এলাকায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অফিসারদের আবাসনের জন্য গঠিত জলসিড়ি আবাসনের পক্ষ থেকে প্রকল্প এলাকার পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন সমুহের অসহায় ও দরিদ্র পরিবারদের ত্রান সহায়তা প্রদান করার ধারাবাহিকতা অব্যাহত আছে।
ধারাবাহিক ত্রান প্রদানের অংশ হিসেবে আজ রুপগঞ্জের কায়েতপাড়া ইউনিয়নের ২০০ পরিবারকে ত্রান সহায়তা প্রদান করা হয়। জলসিড়ি আবাসনের পক্ষ থেকে ত্রান কার্যক্রম পরিচালনা করেন জলসিড়ি প্রকল্পের জেনারেল ম্যানেজার (লিগ্যাল) মেজর এ কিউ এম একরামুল হক।
করোনাকালীন সংকটে অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের পাশে দাড়ানোয় এলাকাবাসী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জলসিড়ি আবাসনের প্রতি তাদের কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে।