প্রভা’স মেকওভার ও বিউটি পার্লার এর ১৩ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে যে গল্প শোনালেন সোনিয়া আক্তার প্রভা

227

সাকিব আল রোমান : সোনিয়া আক্তার প্রভা। মাঞ্জারের মা হিসেবেও দারুণ পরিচিত। যদিও তিনি একজন বহুগুণে গুণান্বিত রমণী। তার ধারাবাহিকতায় গড়ে তুলেছিলেন প্রভা’স মেকওভার ও বিউটি পার্লার। তার প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন যাবৎ সম্মানের সাথে এগিয়ে যাচ্ছিল এবং গ্রাকদের কাছে সু-পরিচিত হয়ে ওঠে।

আজ তার প্রতিষ্ঠান ১৩ বছরে পদার্পন করেছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এই তরুণ উদ্যোক্তা সবাইকো শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

নিম্নে তার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো।

দীর্ঘ ১৩ বছর (২০০৭- ২০২০) ধরে সম্মানের সাথে আমি প্রভা এবং আমার প্রভা’স মেকভার এন্ড বিউটি পার্লার:
আমি একজন মেয়ে, একজন স্ত্রী, একজন মা। তার বাইরে যে পরিচয় গুলো হচ্ছে একজন বিউটিশীয়ান, ডিজে, আর্চার, ব্যবসায়ী আর অবশেসে একজন গ্রুপ এডমিন।তিন ভাই বোন এর মদ্ধে আমি বড়,আমার ছোট দুই ভাই।শৈশব থেকেই চঞ্চল, যে কোন বেপারে আগ্রহি।
পড়া লেখার পাশাপাশি খেলা ধুলা, স্কাউট, নাচ, গান সব কিছুতেই এগিয়ে ছিলাম।

আমার বিউটি পারলার এর কাজ টার প্রতি ছোট থেকেই।আম্মুর সাথে সেই যাত্রাবাড়ি থেকে ধানমন্ডি মে ফেয়ার পার্লার এ আসতাম।আম্মু ভ্রু প্লাগ,ফেসিয়াল করত।কিছুই বুঝতাম না কি করত।কিন্তু এটা বুঝতাম সব শেসে আম্মু কে সুন্দর দেখাচ্ছে। আমার সাজুগুজুর প্রতি অনেক দুর্বলতা ছিল। কিন্তু আম্মু সাজতে দিতে চাইত না স্কিন নস্ট হয়ে যাবে বলে।

২০০৭ সালে যাত্রাবাড়ী তে প্রভা”স মেকওভার এর যাত্রা শুরু। সেই থেকে আজ পর্যন্ত সফল ভাবে সুনাম এর সাথে আমার পারলার এর সব কার্যক্রম চলছে। আমি আজ সত্যি ই গর্বিত। এর মদ্ধে আমাদের পার্লার থেকে অনেকগুলো টিভি শো,বিভিন্ন গার্লস গ্রুপে স্পনসর করা সহ বিভিন্ন সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী কার্যকলাপের অন্তর্ভুক্ত রয়েছি।

আপনাদের সুবিধার্থে জানিয়ে দিচ্ছি যে, আমাদের পার্লারে যে কোন অসহায়, অর্থাৎ বিয়ে ঠিক হয়েছে কিন্তু সামর্থ্য না থাকায় নিজের মনের মতো সাজার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তাদের কে সম্পুর্ন ফ্রি তে সাজিয়ে দেয়ার সুবিধা আমরা দিচ্ছি। যা সবসময়ের জন্য। তবে কোন কোন সময় পার্লারে খুব বেশি কাজের চাপ বা বুকিং বেশি থাকলে, সেই দিন আমরা ফ্রি সেবা টি হয়তো দিতে পারবো না। প্রভা’স মেকওভার এর সম্মানিত গ্রাহকবৃন্দ আপনাদের আশে পাশে এমন কেউ থেকে থাকলে অনুগ্রহ পূর্বক আমাদের ঠিকানা দিয়ে দিবেন।আর অবশ্যই আগে থেকে যোগাযোগ করে কনফার্ম হয়ে আসতে বলবেন।আশা করি সবার সম্মিলিত চেস্টায় আমরা ভালো কিছু করার সুযোগ পাবো।সবশেষে সবাই এইভাবে আপনাদের দোয়া আর ভালোবাসা দিয়ে পাশে থাকবেন।
ধন্যবাদ।

Sponsored