বিশ্বজুড়ে করোনা – থেমে নেই সড়কে দুর্ঘটনা গত ১ মাসে প্রাণহাণি ২১১-আহত-২২৭

4

দেশে চলমান লকডাউনের মধ্যে ১ মাসে ২০১ সড়ক দুর্ঘটনায় ২১১ নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন ২২৭ বলে জানিয়েছে যাত্রী কল্যাণ সমিতি।
বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির সড়ক দুর্ঘটনা মনিটরিং সেলের পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। দেশের সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত এপ্রিল মাসে সড়কে দুর্ঘটনায় আক্রান্তদের মধ্যে ৬৯ জন পথচারী, ৬৭ জন চালক, ৩২জন পরিবহন শ্রমিক, ১৩ জন শিক্ষার্থী, ৩ জন শিক্ষক, ৪৬ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, ২৭জন নারী, ২১জন শিশু, একজন সাংবাদিক ও একজন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীর পরিচয় সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে নিহত হয়েছে ৫০ চালক, ৬৪ পথচারী, ২২ নারী, ১১ শিক্ষার্থী, ২০ পরিবহন শ্রমিক, ১৮ শিশু, একজন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, ২ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, তিন শিক্ষক ও একজন সাংবাদিক।

পরিসংখ্যানে দেখা যায় সর্বোচ্চ ৯৭টি দুর্ঘটনা ঘটেছে ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানের মাধ্যমে। এছাড়া, ৬৩টি দুর্ঘটনা ঘটেছে মোটরসাইকেলে, ২৯টি ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ইজিবাইক, ২৮টি নসিমন ও করিমন, ২২টি সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ১৭টি প্রাইভেট কার ও ১টি দুর্ঘটনা ঘটেছে বাসের মাধ্যমে।

সবচেয়ে বেশি সড়ক দুর্ঘটনা সংগঠিত হয় ২৩শে এপ্রিল। ওইদিন ১৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪জন নিহত ৫ জন আহত হয়। সবচেয়ে কম সড়ক দুর্ঘটনা সংগঠিত হয় ৯ই এপ্রিল। সেদিন ১টি সড়ক দুর্ঘটনায় ১জন নিহত হয়।

দেশে গত ৮ই মার্চ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা। করনার কারণে সম্পূর্ণ বাংলাদেশকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। আর, সারা দেশে গত ২৬শে মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়।

জেলায় জেলায় চলছে লকডাউন। মানুষকে ঘরে রাখতে টহল দিচ্ছে সশস্ত্র বাহিনী, র‌্যাব ও পুলিশ। একইসঙ্গে গরিব-দুস্থদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করেছে সরকার।