ঈদকে কেন্দ্র করে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার অনুমতি গণপরিবহন বন্ধ : সিদ্ধান্ত সরকার

4

ঈদের আগে সাবাইকে কেনাকাটার সুযোগ করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে পর্যায়ক্রমে শিল্পকারখানা খুলে দেয়ার কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী।

সোমবার সকালে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে রংপুর বিভাগের জেলাগুলোর সঙ্গে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ধীরে ধীরে বিভিন্ন সেক্টর খুলে দেয়া হচ্ছে। জেলা ভিত্তিক বিভিন্ন ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প খুলে দেয়ার কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী। তবে সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে এবং মাস্ক পরে চলার পরামর্শ দেন তিনি। একইসাথে সবাইকে সুরক্ষিত থেকে কাজ করার জন্যও অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, দেশের মানুষকে এই মহামারি থেকে রক্ষা করাই সরকারের এই মুহুর্তের সবচেয়ে বড় লক্ষ্য। দেশে যাতে কোন রকম খাদ্য সংকট না হয় সেজন্য এই মৌসুমে ১০ লাখ ধানসহ ২১ লাখ খাদ্যশষ্য সংগ্রহ করবে সরকার।

এসময় রংপুর বিভাগের জেলা গুলোতে যাতে আবার মঙ্গা পরিস্থিতি ফিরে না আসে সেজন্য সবাইকে সতর্ক থাকারও পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।