বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকে মুগ্ধ রোহিত শর্মা

0

হিটম্যান খ্যাত রোহিত শর্মাও ব্যাট হাতে নার্ভাস হন সব সময়েই। তামিম ইকবালের লাইভ আড্ডায় নিজেই জানালেন মারকুটে এই ব্যাটসম্যান। বাংলাদেশের ভক্তদের ক্রিকেট প্রেমে মুগ্ধ রোহিত। পৃথিবীর আর কোথাও এমন সমর্থক দেখেন না বলেও জানান ভারতের সহ-অধিনায়ক।

মাঠের খেলা বন্ধ, অলস সময় কাটছে। তাই নিজের আগে না বলা কথা আর সতীর্থ বন্ধুদের অজানা কিছু চমকপ্রদ তথ্য ভক্ত সমর্থকদের জানানোর চেষ্টা তামিম ইকবালের। যার মাধ্যম ভার্চুয়াল জগত। দেশের গন্ডি পেরিয়ে আড্ডা হচ্ছে বিদেশি বন্ধুদের সাথেও। এবারের আড্ডায় তামিমের সঙ্গী হলেন ভারতের তারকা ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা।

মাঠের বাইরে যেমন তেমন, ২২ গজে নামলেই দেখা যায় রুদ্রমূর্তিতে। যার নামের পাশে বসেছে হিটম্যানের টাইটেল। সেই রোহিতও নাকি ব্যাট হাতে নার্ভাস হন সবসময়ই। তিনি জানান, ‘যে বলে আমি নার্ভাস না সে মিথ্যে বলে। প্রথম ম্যাচ হোক বা ৩০০তম নাভার্স সবাই হয়। কারণ সবাই ভালো খেলার জন্য নামে। আর সে কারণেই নাভার্স হওয়াটা স্বাভাবিক। তবে তার মানে এটা না যে আপনি ভয় পেয়ে গেছেন। আমিতো সব ম্যাচেই প্রথম ১০-১৫ মিনিট খুবই নার্ভাস থাকি।’
বাংলাদেশকে পেলেই যেন হিটম্যানের হিট বেড়ে যায় কয়েকগুন। সবমিলিয়ে টাইগারদের বিপক্ষে ৩০টার মতো ম্যাচ খেলেছেন, রান দেড় হাজারের বেশি। যেখানে সেঞ্চুরি আছে ৬টা। কি এর রহস্য! আবার নাকি বাংলাদেশের মাটিতে কোন সমর্থন পায়না টিম ইন্ডিয়া। এ প্রসঙ্গে রোহিত বলেন, ‘সবাই জেতার জন্যই খেলে। দল, খেলোয়াড় সবাই একশো ভাগ দিতে মাঠে যায়। সবাই দলকে জেতাতে চায়। বাংলাদেশে খেলেছি, দেখেছি, সমর্থকরা কতোটা আবেগপ্রবণ। বিশ্বের সব জায়গায় ভারতীয় দর্শকের সমর্থন পাই। একমাত্র বাংলাদেশে সেটা হয়না।’

বাংলাদেশি বন্ধুর সাথে আড্ডা। তাইতো টাইগারদের নিয়ে কথা হয়েছে বিস্তর। রোহিত শর্মা পরামর্শ দিয়েছেন, কিভাবে আরো প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ করা যায় বিপিএলের মতো ফ্র্যাঞ্জাইজি লিগকে। ভারত ক্রিকেট দলের সহ-অধিনায়ক আরও বলেন, ‘আমি মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে খেলছি ৯ বছর ধরে। তোমাদের দেখি দ্রুত দল পাল্টাও। বিসিবির উচিত কয়েকজন খেলোয়াড় বাছাই করে তাদের বেশ কয়েক বছর নির্দিষ্ট একটা দলে খেলানো। তাতে জনপ্রিয়তা বাড়বে। যে কোন খেলায় কিন্তু ভক্ত সমর্থক খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’
নতুন দায়িত্ব পাবার পর এখনো মাঠে নামা হয়নি। তবে ভার্চুয়াল জগতে ভালোই খেল দেখাচ্ছেন টাইগারদের ওয়ানডে ক্যাপ্টেন তামিম ইকবাল।

Sponsored