ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারনে বরগুনায় আম চাষিদের ব্যাপক ক্ষতি

0

মো:কবির সিকদার(বরগুনা উপজেলা প্রতিনিধি)

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারনে বরগুনার বিভিন্ন স্থানে বেড়িবাঁধ ভেঙে অর্ধশত গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে ওইসব এলাকার ঘরবাড়ি। এছাড়াও জলোচ্ছ্বাসের পানিতে ভেসে গেছে মাছের ঘের। তলিয়ে গেছে মুগডাল, চিনা বাদাম, ভুট্টার ক্ষেত এবং বিনষ্ট হয়েছে আম বাগান। সবচেয়ে বেশি লোকসানে পড়েছে আম চাষিরা।

বরগুনা সদর উপজেলার ৬ নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি সদস্য মাঈনুদ্দিন ময়নার সোনাখালি গ্রামে দক্ষিণ অঞ্চলের মধ্যে সবচেয়ে বড় দুইটি আম বাগান রয়েছে । এতে প্রতি বছরের চেয়ে এ বছর আমের ফলন বাম্পার হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্পানের বাতাসের গতি বেগ বেশি থাকায় লেংরা, চোষা, গুটি ও রূপালী আমের বেশি ক্ষতি হয়েছে। এতে ধারণা করা গেছে কমপক্ষে ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা মতো আম মাটিতে পড়ে গেছে। এতে দক্ষিণ অঞ্চলে আমের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ইউপি সদস্য মাঈনুদ্দিন ময়না বলেন, ২০/২৫ দিন পর ই আম পাকা শুরু হতো। তুলনামূলকভাবে প্রতিবছর চেয়ে এ বছর প্রত্যেকটা গাছে আমের ফলন ভালো হয়েছে। ভাগ্য খারাপ ঘূর্ণিঝড় আম্পানের বাতাসের গতি এতটাই বেশি ছিলো সব আম ঝরে গেছে। যা ক্ষতি হয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে অনেক সময় লাগবে। এ বছর আমরা মাঠে মরে গেলাম।